Home খেলাধূলা ২১২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে উইন্ডিজ

২১২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে উইন্ডিজ


বিশ্ববিদ্যায়ল পরিক্রমা প্রতিবেদক : মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে টাইগারদের আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান উইন্ডিজ অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েইট। ব্যাটিংয়ে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ তুলেছে ২১১ রান। যা টাইগারদের টি-টোয়েন্টির দ্বিতীয় দলীয় সর্বোচ্চ। এর আগে গত মার্চে ১৯.৪ ওভারে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২১৫ রান করে ম্যাচ জিতেছিল টাইগাররা।

মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে টাইগারদের আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান উইন্ডিজ অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েইট। ব্যাটিংয়ে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ তুলেছে ২১১ রান। যা টাইগারদের টি-টোয়েন্টির দ্বিতীয় দলীয় সর্বোচ্চ। এর আগে গত মার্চে ১৯.৪ ওভারে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২১৫ রান করে ম্যাচ জিতেছিল টাইগাররা।

বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিতে নামেন তামিম ইকবাল এবং লিটন দাস। ৪.১ ওভারে দুজন তুলে ফেলেন ৪২ রান। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে জীবন পান তামিম। তারপরও খুব বেশি সময় টিকতে পারেননি। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের স্পিনে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন। বিদায়ের আগে তামিম ১৬ বলে এক বাউন্ডারিতে করেন ১৫ রান। ২৬ বলে ৫টি চার আর চারটি ছক্কায় ফিফটি পূর্ণ করেন লিটন।

আরেক প্রান্তে ব্যাটে ঝড় তোলেন সৌম্য সরকার। লিটনের সঙ্গে ৬৮ রানের জুটি গড়েন সৌম্য। ইনিংসের ১২তম ওভারে কতরেলের বলে ব্রাথওয়েইটের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেওয়ার আগে সৌম্য ২২ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৩২ রান। দলীয় ১১০ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। একই ওভারের শেষ বলে বোল্ড হওয়ার আগে লিটন ৩৪ বলে করেন ৬০ রান। তার ইনিংসে ছিল ছয়টি বাউন্ডারি আর চারটি ওভার বাউন্ডারি।

১৩তম ওভারের শেষ বলে ওশানে থমাসকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে বাউন্ডারি সীমানায় ক্যাচ দেন মুশফিকুর রহিম (১)। দলীয় ১২০ রানের মাথায় বাংলাদেশ চতুর্থ উইকেট হারায়। এরপর ৪২ বলে ৯১ রানের জুটি গড়ে অবিচ্ছিন্ন থাকেন সাকিব আল হাসান এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সাকিব ২৬ বলে ৫টি চার আর একটি ছক্কার সাহায্যে করেন অপরাজিত ৪২ রান। আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২১ বলে ৭টি চারের সাহায্যে করেন অপরাজিত ৪৩ রান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে হারে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টায় টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামে দুই দল।

এর আগে সিলেটে ক্যারিবীয়ান পেসার শেলডন কতরেলের বলে খেই হারিয়ে ফেলেছিল টাইগার ব্যাটসম্যানরা। আর শাই হোপের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় পায় সফরকারীরা। তাতেই সিরিজে ১-০ তে পিছিয়ে যায় টাইগাররা। সিরিজে সমতায় ফিরতে তাই মিরপুরে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই সাকিব-মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকদের। শেষ পাঁচ টি-টোয়েন্টিতে দুটি জয় ও বাকি তিনটিতে হেরেছে টাইগাররা। অন্যদিকে, শেষ পাঁচ টি-টোয়েন্টিতে মাত্র ১টি জয় আর বাকি চারটিতেই হেরেছে ক্যারিবীয়রা।