Home জাতীয় নির্বাচনে ১১১৫ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

নির্বাচনে ১১১৫ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

SHARE

বিশ্ববিদ্যায়ল পরিক্রমা প্রতিবেদক :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি) প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) পটিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিজিবির অস্থায়ী ক্যাম্প পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করছে বিজিবি। সারাদেশে মোট ১১শ’ ১৫ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। শুধু চট্টগ্রাম অঞ্চলে মোতায়েন করা হয়েছে ১৪৫ প্লাটুন বিজিবি। ১৮ ডিসেম্বর থেকে মাঠে রয়েছে বিজিবি, তবে কাজ শুরু করেছি ২০ ডিসেম্বর থেকে।’

তিনি জানান, ‘প্রতি আসনে বিজিবির একটি করে ক্যাম্প করা হয়েছে। প্রত্যেক উপজেলায় ৪-৬ প্লাটুন ও শহর এলাকার প্রতি ওয়ার্ডে ৩-৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন বিজিবি সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।’

তিনি বলেন, ‘সুষ্ঠু ও নিরাপদ নির্বাচনের পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষে কাজ করছে বিজিবি। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এখনও তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। দুই একটি জায়গায় সামান্য অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ার উপক্রম হয়েছিল। সেগুলো বিজিবি, পুলিশ মিলে নিয়ন্ত্রণ করেছি। বাঁশখালীতে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে, সেটি আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছি।’

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, ‘নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকে চ্যালেঞ্জ মনে করছে না বিজিবি। আপনাদের (সাংবাদিক), জনগণের সহযোগিতা পেলে সবকিছু সুন্দরভাবে শেষ করতে পারবো বলে মনে করি। ‘

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় হেলিকপ্টার যোগে পটিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৮ বিজিবির অস্থায়ী ক্যাম্পে আসেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম।

সেখানে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. ইলিয়াস হোসেন এবং চট্টগ্রামের পু্লিশ সুপার নুরেআলম মিনার সঙ্গে কথা বলেন বিজিবি মহাপরিচালক।

পরে তিনি বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে বিজিবি সদস্যদের দিক নির্দেশনাও দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিজিবির দক্ষিণ-পূর্ব (চট্টগ্রাম) রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আদিল চৌধুরী, ডেপুটি রিজিয়ন কমান্ডার কর্নেল আরেফিন তালুকদার, ৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেনেন্ট কর্নেল মুনির হাসানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।