Home বিনোদন শীতের ফ্যাশন

শীতের ফ্যাশন

SHARE

বিশ্ববিদ্যায়ল পরিক্রমা ডেস্ক :এখন স্কুল-কলেজ, অফিস কিংবা কোন অনুষ্ঠানে যেতে ফ্যাশন আমাদের নিত্যসঙ্গী। কী পোশাক পরলে, কেমন সাজলে নিজেকে অন্যদের চেয়ে আলাদা লাগবে তা নিয়েই ব্যস্ত ফ্যাশনসচেতরা।

শীতকালে গরম কাপড় বিশেষ করে সোয়েটার, চাদর, কোট, ব্লেজার প্রভৃতি পরতেই হয়। এসব পোশাকে যদি শীতের ঠাণ্ডা এড়ানোর পাশাপাশি দেখতেও ফ্যাশনেবল লাগে তাহলে তো কথাই নেই। এজন্য শীতে স্মার্ট লুকের জন্য বেছে নিন নিজের পছন্দসই আরামদায়ক নানা ফ্যাশনেবল পোশাক।

মেয়েদের পোশাক :

# সাদা কোন পোশাকের সঙ্গে লেদারের জ্যাকেট, ব্লেজার কিংবা কালো রঙ্গের কোন সোয়েটার পরতে পারেন। এতে আপনাকে আকর্ষণীয় দেখাবে।

# লম্বা পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে স্কার্ফ এবং বুট জুতা পরে নিন। চাইলে টুপি, কার্ডিগান, জিন্সের জ্যাকেট ও কোর্টও পরতে পারেন।

# আঁটসাট পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে লম্বা বুটওয়ালা জুতাও পরতে পারেন। লেইস আপ বুটও যোগ করতে পারেন। এর সঙ্গে উষ্ণতার জন্য মোজা যোগ করতে পারেন।

# চাইলে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে প্যান্টও পরতে পারেন। তবে এমন প্যান্ট পরুন যাতে পায়ের পুরোটাই ঢাকা থাকে।

# চমৎকার আঁটসাঁট পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে একটি ডেনিম জ্যাকেট পরুন। সঙ্গে বুট তো আছেই। এতেও আপনাকে সুন্দর দেখাবে।

শিশুদের পোশাক যেমন হওয়া দরকার: ফ্যাশনে তরুণ-তরুণীদের পাশাপাশি শিশুরাও কম যান না। শিশুদের শীতের পোশাকে যোগ করা হচ্ছে নানা ধরনের ফুল, লতাপাতা, কার্টুন, প্রজাপতি, তারা ইত্যাদি মোটিফ। তবে তাদের পোশাকগুলো তৈরির সময় আরামদায়ক বিষয়টি বেশি প্রাধান্য পায়। শিশুদের পোশাকের মধ্যে রয়েছে সোয়েটার ও জ্যাকেট। শিশুদের যেহেতু কালারফুল পোশাকে বেশি মানায় তাই তাদের পোশাকে উজ্জ্বল রং যেমন লাল, গোলাপি, নীল, হলুদ ইত্যাদি রং প্রাধান্য পাচ্ছে। তার সঙ্গে রয়েছে মানানসই বিভিন্ন টুপি ও মাফলার। নবজাতকদের জন্যও রয়েছে বেবিকিপারের মত বিভিন্ন পোশাক যা বাচ্চাদের পা থেকে পুরো শরীর ঢাকা থাকে। এছাড়া রয়েছে হুডি সোয়েটার ও ফুল স্লিভ টি শার্ট।