Home আন্তর্জাতিক কাশ্মিরে হামলার কথা সরকার আগে থেকেই জানতো : মমতা

কাশ্মিরে হামলার কথা সরকার আগে থেকেই জানতো : মমতা

SHARE

বিশ্ববিদ্যায়ল পরিক্রমা ডেস্ক :  কাশ্মিরে পুলাওয়ামা হামলার কথা সরকার আগে থেকেই জানতো বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি প্রশ্ন তোলেন, গোয়েন্দা তথ্য থাকার পরও কেন সরকার ব্যবস্থা নিলো না। বৃহস্পতিবার পুলওয়ামাতে আরডিএক্স বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি নিয়ে ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স’র গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়। এতে বহরের ৭০টি গাড়ির মধ্যে একটি বাস সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হয়ে যায়। প্রাণ হারায় বাহিনীর অন্তত ৪৪ সদস্য।

হামলার পর উগ্রবাদী গোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ ঘটনার দায় স্বীকার করে দেয়া বিবৃতিতে জানায়, তাদের হয়ে পুলওয়ামারই বাসিন্দা আদিল আহমেদ দার ওই হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরে কাশ্মির পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত রয়েছে। এর মধ্যেই সোমবার নতুন করে নিরাপত্তা বাহিনী ও সন্দেহভাজন উগ্রবাদীদের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়েছে।

এই ঘটনায় মোদি সরকারের সমালোচনা করে মমতা বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার কেন গোয়েন্দা তথ্যকে উপেক্ষা করে সিআরপিএফ বহরকে যেতে দিলো।

তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘এত বছর কেন তারা কোনো ব্যবস্থা নিলো না। নির্বাচন যখন একদমই সামনে চলে এসেছে তখন কেন এই ছায়াযুদ্ধের শুরু?

মমতা ব্যানার্জি বলেন, তিনি তার রাজ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশকে কঠোর থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি জনগণকে আহ্বান জানান তারা যেন কোনো সমাজবিরোধী ভাবধারায় প্ররোচিত না হন।
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মোদি ও অমিত শাহ বক্তব্য দিয়ে জাহির করতে চাইছেন যে শুধু তারাই দেশপ্রেমিক। বাকিরা নন। এটা সত্য নয়। বিজেপি, আরএসএস, ভিএইচপি সবাই আসলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইছে। আমি গত পাঁচ দিন চুপি ছিলাম। কিন্তু এখন মুখ খুলতে বাধ্য হয়েছি। কারণ আমি দেখিছিল সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরি হচ্ছে।’

মমতা বলেন, ‘৮ ফেব্রুয়ারি সরকারের কাছে গোয়েন্দা তথ্য ছিল যে এমন হামলা হতে পারে। তারপরও সেখানে কেন ৭৮ সেনাকে পাঠানো হলো। আমি এমনো শুনেছি যে আমার ফোন সবসময়ই রেকর্ড করা হচ্ছে।’ সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া