Home জাতীয় জিপিএ-৫ ঢাকা, পাসে রাজশাহী, সবার নিচে সিলেট বোর্ড

জিপিএ-৫ ঢাকা, পাসে রাজশাহী, সবার নিচে সিলেট বোর্ড

1
0
SHARE

বিশ্ববিদ্যালয় পরিক্রমা ডেস্ক : মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের (দাখিল ও এসএসসি-ভোকেশনাল) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এবার ১০ বোর্ডের মধ্যে এসএসসিতে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮০ শতাংশ, মাদরাসা বোর্ডে ৮৩ দশমিক ০৩ শতাংশ ও কারিগরিতে ৭২ দশমিক ২৪ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লক্ষ ৫ হাজার ৫৯৪ জন শিক্ষার্থী। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ লক্ষ ১০ হাজার ৬২৯ জন।

পাসের দিক থেকে সবচেয়ে এগিয়ে শিক্ষানগরী খ্যাত রাজশাহী। জিপিএ-৫ এর দিক থেকে প্রথমে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। অপরদিকে পাসের হার ও জিপিএ-৫ উভয় দিক দিয়েই সর্ব নিম্নে অবস্থান করছে সিলেট শিক্ষা বোর্ড।

এবার ৯১ দশমিক ৬৪ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে রাজশাহী বোর্ডে, যা এবারের যেকোনোও বোর্ডের চেয়ে বেশি। গতবার রাজশাহী বোর্ডে পাস করেছিল ৮৬ দশমিক ০৭ শতাংশ। শিক্ষানগরী খ্যাত রাজশাহী গতবারও শীর্ষে ছিল।

আর জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে সবচেয়ে এগিয়ে ঢাকা বোর্ড। তবে এ বোর্ডে জিপিএ-৫ এর সংখ্যা ব্যাপক কমেছে। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৯ হাজার ৬৮৭ জন। গত বার এই সংখ্যা ছিল ৪১ হাজার ৫৮৫ জন। এবার ঢাকায় পাসের হার ৭৯ দশমিক ৬২ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৮১ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

অপর দিকে ৭০ দশমিক ৮৩ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে সিলেট বোর্ডে, যা এবারের যেকোনোও বোর্ডের চেয়ে কম। গতবার এই বোর্ডে পাস করেছিল ৭০ দশমিক ৪২ শতাংশ। গতবারও সিলেট পাসের দিক দিয়ে সর্বনিম্নে ছিল। এছাড়াও এই বোর্ড জিপিএ-৫ এর সংখ্যাতেও সর্বনিম্ন। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৭৫৭। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩ হাজার ১৯১ জন।

এক নজরে সকল বোর্ডের পাসের হার ও জিপিএ-৫

রাজশাহী বোর্ডের পাসের হার ৯১ দশমিক ৬৪ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ। রাজশাহীতে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২২ হাজার ৭৯৫। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৯ হাজার ৪৯৮ জন।

যশোর বোর্ডের পাসের হার ৯০ দশমিক ৮৮ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ। যশোরে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ৯৪৮। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৯ হাজার ৩৯৫ জন।

কুমিল্লা বোর্ডের পাসের হার ৮৭ দশমিক ১৬ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৮০ দশমিক ৪০ শতাংশ। কুমিল্লাতে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮ হাজার ৭৬৪। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৬ হাজার ৮৬৫ জন।

দিনাজপুর বোর্ডের পাসের হার ৮৪ দশমিক ১০ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৭ দশমিক ৬২ শতাংশ। দিনাজপুরে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ২৩ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১০ হাজার ৭৫৫ জন।

ঢাকা বোর্ডের পাসের হার ৭৯ দশমিক ৬২ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৮১ দশমিক ৪৮ শতাংশ। ঢাকাতে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৯ হাজার ৬৮৭ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪১ হাজার ৫৮৫ জন।

চট্টগ্রাম বোর্ডের পাসের হার ৭৮ দশমিক ১১ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। চট্টগ্রামে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ হাজার ৩৯৩ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৮ হাজার ৯৪ জন।

বরিশাল বোর্ডের পাসের হার ৭৭ দশমিক ৪১ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৭ দশমিক ১১ শতাংশ। বরিশালে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ১৮৯। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩ হাজার ৪৬২ জন।

সিলেট বোর্ডের পাসের ৭০ দশমিক ৮৩ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭০ দশমিক ৪২ শতাংশ। সিলেটে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৭৫৭। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩ হাজার ১৯১ জন।

এছাড়াও মাদরাসা বোর্ডের পাসের হার ৮৩ দশমিক ০৩ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭০ দশমিক ৮২ শতাংশ। মাদরাসায় এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ২৮৭ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩ হাজার ৩৭১ জন।

কারিগরি বোর্ডের পাসের হার ৭২ দশমিক ২৪ শতাংশ। গতবার এই বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭১ দশমিক ৯৬ শতাংশ। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৭৫১ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ৪১৩ জন।

সোমবার (৬ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষামন্ত্রীর হাতে পরীক্ষার ফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা। এসময় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির ফলাফলের কিছু অংশ তুলে ধরেন।