Home আন্তর্জাতিক ৫০ নারী আটক ভারতের প্রধান বিচারপতির যৌন কেলেঙ্কারি ইস্যুতে

৫০ নারী আটক ভারতের প্রধান বিচারপতির যৌন কেলেঙ্কারি ইস্যুতে

SHARE

বিশ্ববিদ্যালয় পরিক্রমা ডেস্ক : ৫০ জনেরও বেশি নারীকে আটক করেছে ভারতীয় পুলিশ। দেশটির সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে বিক্ষোভরত অবস্থায় তাদের আটক করা হয়। এর একদিন আগে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে যৌন হয়রানির মামলায় দায়মুক্তি দেওয়া হয়। এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় বিক্ষোভ করছিলেন ওই নারীরা।

সম্প্রতি ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন এক নারী। এই অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে ভারতের রাজধানী দিল্লির আদালত চত্ত্বরে সমবেত হয়েছিলেন অ্যাক্টিভিষ্টরা।

এদিকে, ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ওই অভিযোগকে ‘মিথ্যা’ এবং এবং ‘বিচার বিভাগকে অস্থিতিশীল করার’ প্রচেষ্টা বলে অভিহিত করেছেন।

আদালতের সাবেক এক নারী কর্মচারী রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে ওই অভিযোগ আনেন। এই নারী তদন্তের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে মামলা থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

ওই অভিযোগের নতুন করে তদন্ত চান বিক্ষোভকারীরা। তদন্ত প্রতিবেদনের জনসমক্ষে প্রকাশ করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে বিক্ষোভকারীদের একজন আইনজীবী অমৃতানন্দ চক্রবর্তী টুইটবার্তায় বলেন, পাঁচ মিনিটের জন্যও আমাদের প্রতিবাদ করতে দেওয়া হয়নি।

রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আনা নারী বিবাহিতা। তবে তার নাম জানা যায়নি।

তাঁর অভিযোগ, ১০ এবং ১০ অক্টোবর প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ তার শরীরে অনৈতিকভাকে চাপ দিয়েছিলেন। অফিসেই তিনি এই কাজ করেছেন।

তিনি বলেন, সে সময় প্রধান বিচারপতি কোমর পেঁচিয়ে ধরে আমাকে আলিঙ্গন করেন। তিনি হাত দিয়ে আমার শরীরের সর্বত্র স্পর্শ করেছিলেন যতক্ষণ না আমি তাঁকে ধাক্কা দিয়ে দূরে ঠেলে দিই।

ওই নারী বলেন, রঞ্জন গগৈ তার পরিবারকে এই বলে হুমকি দিয়েছিলেন যে, এ ঘটনা কাউকে বললে ‘খুবই খারাপ’ হবে। সূত্র : বিবিসি