Home আন্তর্জাতিক প্রমাণ করতে না পারলে ১০০ বার কান ধরে উঠবস করতে হবে: মমতা

প্রমাণ করতে না পারলে ১০০ বার কান ধরে উঠবস করতে হবে: মমতা

SHARE

বিশ্ববিদ্যালয় পরিক্রমা প্রতিবেদক : তৃণমূলের কোনও প্রার্থী কয়লা মাফিয়া, এটা প্রমাণ করতে পারলে দলের ৪২ জন প্রার্থীকেই তিনি প্রত্যাহার করে নেবেন বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চ্যালেঞ্জ জানালেন মমতা ব্যানার্জী। একই সঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, যদি প্রমাণ না-হয়, আপনাকে সবার সামনে ১০০ বার কান ধরে উঠবস করতে হবে।

বৃহস্পতিবার পুরুলিয়ার সভায় মোদি তৃণমূলের নেতারা কয়লা মাফিয়া আখ্যা দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার সভা থেকে মোদিকে তুলাধুনো করেন মমতা। প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধে তার পাল্টা প্রশ্ন, কয়লা মন্ত্রণালয় কার অধীনে? কেন্দ্রের। কে মন্ত্রী?

এ রাজ্যের কয়লা খনিগুলি যে কেন্দ্রীয় পাহারায় থাকে, তা উল্লেখ করে মমতার তীর, কয়লা তো সিআইএসএফ পাহারা দেয়। রাজ্য পুলিশ পাহারা দেয় না। নরেন্দ্র মোদি আপনার পুলিশ, আপনার দফতর পাহারা দেয়। আপনার ক্যাডাররা তো করে খায়। আর বলছেন তৃণমূলের লোক মাফিয়া!

মোদি নির্দিষ্ট ভাবে তৃণমূলের কোনও নেতার নাম করেননি। তবে আসানলোল, রানিগঞ্জ, বাঁকুড়ার মেজিয়া, পুরুলিয়ার নিতুড়িয়া, সাঁতুড়ির মতো কিছু জায়গায় তৃণমূলের কয়েক জন নেতা কয়লা-চক্রের সঙ্গে যুক্ত, বিজেপি অনেক দিন ধরেই এই অভিযোগ করছে। এ দিন খোদ মোদি সরাসরি এই অভিযোগ এনে বলেন, তৃণমূল কয়লা মাফিয়াকে ভোটে দাঁড় করাচ্ছে।

এর জবাবে মমতা বলেন, আমার এক জন প্রার্থী কয়লা মাফিয়া বলে প্রমাণ করতে পারলে ৪২ জনকেই প্রত্যাহার করে নেব।কয়লা-দুর্নীতিতে আপনার লোকেরা যুক্ত আছে। ফাইলটা খুলব নাকি?

একই ভাবে এলপিজি গ্যাস কেলেঙ্কারি এবং গরু পাচারে বিজেপির লোক জড়িত বলে পাল্টা অভিযোগ এনে মমতার হুমকি, আমার কাছে একটা পেন ড্রাইভ আছে। আমি যদি ওটা বাজারে ছেড়ে দিই, তা হলে কিন্তু গরু পাচার, কয়লা মাফিয়ার কথা নিয়ে অনেক কাগজ বেরিয়ে যাবে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিজেপির সাংসদ গরু পাচার নিয়ে ব্যবসা করছে। গরু পাচারে কোন কোন মন্ত্রী আর ক্যাডাররা যুক্ত, খাতাটা একটু খুলব নাকি? বহরমপুরের গ্যাস কেলেঙ্কারি বার করব? এলপিজি গ্যাস দেবেন বলে ডিস্ট্রিবিউশনে কত টাকা নেওয়া হয়েছে? ২২ কোটির কেলেঙ্কারি। গরু পাচারের জন্য কত টাকা বিল হয়েছে? যখন আপনি (মোদি) মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, আপনার রাজ্যে (গুজরাট) গ্যাস কেলেঙ্কারি ধরব? খুলব না কি পাতাগুলো?

এমন নানা তথ্য-প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও তিনি ‘ভদ্রতা’র সৌজন্যে কোনও প্রতিহিংসার পথে এখনও যাননি বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তার সাফ কথা, আমার কাছে জেনে রাখুন, আপনার চার-পাঁচ জন মন্ত্রীর অভিযোগ আমার কাছে ফাইলে আছে। আমি ভদ্রতা করে ওই সব ফাইল খুলিনি। কিছু করিনি।