Home ব্রেকিং মতলব উত্তর থানা ওসি’র উদ্যোগে ৬ ঘন্টার স্বেচ্ছাশ্রমে ৪কিঃমিঃ রাম্তা মেরামত

মতলব উত্তর থানা ওসি’র উদ্যোগে ৬ ঘন্টার স্বেচ্ছাশ্রমে ৪কিঃমিঃ রাম্তা মেরামত

SHARE

শামসুজ্জামান ডলারঃ
চোর-ডাকাত নিয়েই পুলিশের কারবার। আর যে কাজই হোকনা কেন পুলিশের কাছে গেলে টাকা লাগে সাধারন মানুষের এমন ধারনা পাল্টে দিচ্ছেন মতলব উত্তর থানার ওসি মিজানুর রহমান। মানবিকতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই কাজ করে যাচ্ছন তিনি। কথা হলে তিনি এমনটাই জানান।

গত সোমবার মতলব উত্তর উপজেলা সদর  ঘনিয়ারপাড়- ঢাকামুখী কালিপুর গুরুত্বপূর্ন রাস্তার জীবগাঁও থেকে পাঁচগাছিয়া পর্যন্ত এলাকায় পাকা রাস্তায় বেশ ক’টি বড় বড় গর্ত ও কয়েকটি স্থানে রাস্তা ধসেগিয়ে যানবাহন চলাচল কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। এ বৃষ্টি মৌসুমে যা খুবই ভয়াবহ হয়ে পড়ে। ইঞ্জিন বিকল ও ছোটখাটো দুর্ঘটনা নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাড়িয়েছে। থানা পুলিশের ৬ঘন্টার স্বেচ্ছাশ্রমের  ফলে রাস্তাটি স্বাভাবিক হয়।

রাস্তা মেরামতে ওসি (তদন্ত)মোরশেদুল আলম, এসআই গোলাম মোস্তফা, এসআই ইসমাঈল হামেন, এসআই নাহিদ, এএসআই জ্ঞানময় চাকমা, এএসআই হাবিবসহ প্রায় ১৪/১৫ জন অফিসার ফোর্স, পৌরসভার স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার রুহুল কুদ্দুস শ্রমিক সংগঠণ ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের স্থানীয় সদস্যদের নিয়ে একযোগে সড়কের বড় বড় গর্ত ও ভাঙ্গা অংশগুলো ইট-বালু দিয়ে এবং রোলার মেশিনে সমান্তরাল করে মাত্র ৬ ঘন্টায় ৪কিঃমিঃ রাস্তা মেরামত কাজ সম্পন্ন করা হয়।

ওসি মিজানুর রহমান জানান, চাঁদপুরের পুলিশ সুপারের পরামর্শ ও উৎসাহে রিক্সা, সিএনজি ও ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা, ল্যাগুনাসহ অন্যান্য যানচালক ও যাত্রীদের কষ্ট লাঘব করতে তিনি পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ইট-বালি দিয়ে রাস্তা মেরামত করেন। এধারা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান, তবে তিনি ইট ভাটার মালিক ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ইট ও আদলা দিয়ে সহযোগীতা করার জন্য।

মেরামতচলাকালীন কথাহলে এ রুটে চলাচলরত অটোচালক আবুল হাসেম, শিপন ও রুস্তম আলী জানায়, ভাই আমগো যাতায়াতের সুবিধার লাইগা পুলিশ আমগো রাস্তা মেরামত কইরা দিতাছে চৌখে না দেখলেতো বিশ্বাসই করতে পাড়তামনা।

উপস্থিত রিক্মা চালক মোতালেব ও আব্দুল হাকিম জানায়, পেসিঞ্জার লইয়া এই রাস্তা দিয়া যাইতে-আইতে আমগো জান বারইয়া যাইতো। দোয়াকরি ওসি সাবরে আল্লায় অনেকদিন বাঁচাইয়া রাহুক।
ল্যাগুনা চালক ফজলু ও মোবারক জানায়, এই ভাঙ্গাচুড়া রাম্তাদিয়া গাড়ি চালাইয়া আমগো অনেক ক্ষতি। গাড়ির যন্ত্রপাতি দ্রুত নষ্ট অয় আর যাত্রীও উঠতে চায়না। মেরামত করনে আমগো অনেক উপতার অইছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ৭০ উর্ধ বয়সের মনির হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, নামাজে মসজিদে যাইতে আমার অনেক কষ্ট অইতো। বিশেষ কইরা এশা আর ফজর পড়তে মসজিদে যাইতেই পাড়তাম না, গর্ত আর খানা-খন্দকের লইগা। দোয়াকরি আল্লায় পুলিশের বালা করুক।

উল্লেখ্য, ওসি মিজানুর রহমান মতলব উত্তর থানায় যোগদানের পর পুলিশ ও বিসিএস এর ভেরিফিকেশনে প্রার্থীর বাড়ীতে বাড়ীতে মিষ্টি ও ফুল পাঠিয়ে দিয়েছেন। বর্ষায় চোর-ডাকাতের উপদ্রপ থেকে রক্ষায় ধনাগোদা বেড়িবাঁধের চারদিকে স্থানীয় অটো-সিএনজি চালক ও গ্রাম পুলিশের সমন্ময়ে বিশেষ পোষাকে রাত জেগে পাহাড়ার ব্যাবস্থা করেছেন। রাতে পুলিশের নিজস্ব অর্থায়নে নাম্তা সরবরাহ করা হচ্ছে।