Home সারা বাংলা অভাবীদের মাঝে আজও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন কামরুল হাসান রিপন

অভাবীদের মাঝে আজও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন কামরুল হাসান রিপন


বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ নামক ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এখন দেশ প্রায় অবরুদ্ধ। করোনা ভাইরাসের মারাত্মক সংক্রমন শুরু হয়েছে বাংলাদেশে। মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে তিন হাজার (৩৩৮২)। মৃতের সংখ্যাও বেড়ে দাড়িয়েছে ১১০।
এমতাবস্থায় আতংক, আশংকায় নির্জীব হয়ে যাচ্ছে চঞ্চল জনপদ। চিকিৎসা ও খাদ্য নিয়ে চলছে হাহাকার। দুর্যোগের এই সময়টাতে আবদ্ধ মানুষদের প্রয়োজনীয় খাবার ও ব্যবহার্য সামগ্রী সরকারের পাশাপাশি সামর্থ্যমত তুলে দিচ্ছেন বেসরকারী প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন সংগঠন।
দেশের এই সংকটকালে হত দরিদ্র, খেটে-খাওয়া, দিনমজুর, রিক্সাওয়াল এবং কর্মহীন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকেই গরীব-দুঃখী, মেহনতি মানুষের খাবার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য-সামগ্রী দিয়ে সেবা করে চলেছেন তিনি।
তারই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কদমতলী থানার ৫৯ নাম্বার ওয়ার্ডের অসহায়, সাধারণ মানুষের মাঝে চাল-ডাল, তেল, আলুসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন কামরুল হাসান রিপন। বিকাল ৫টার দিকে নিজের বাসা থেকে প্রায় তিন কিলোমিটারেরও বেশি দূরে গিয়ে এই ত্রান বিতরণ কার্যক্রম পরিচালন করেন সেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি।
স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ত্রান কার্যক্রমে তাকে সার্বিকভাবে সহায়তা করেন কদমতলী থানা স্বেচ্ছাসেসবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউসুফ আলী সিজার। এসময় কদমতলী থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সোহেল, সাবেক ছাত্রনেতা সৈয়দ মহিউদ্দিন টুটুল ছাড়াও আরও কয়েকজন নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
কামরুল হাসান রিপন বলেন, ‘ঘরবন্ধী অসহায়, খেটে-খাওয়া মানুষদের মাঝে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। সরকারের পক্ষ থেকেও করোনাভাইরাসজনিত বিপর্যয়ে ত্রাণসহায়তা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। দেশরত্ন শেখ হাসিনার আরও বড় পরিকল্পনা রয়েছে।’