Home সারা বাংলা মতলব দক্ষিণে এই মহামারিতে জেলেদের চাউল আত্মসাৎ করার অভিযোগ চেয়ারম্যান রিপন মীর...

মতলব দক্ষিণে এই মহামারিতে জেলেদের চাউল আত্মসাৎ করার অভিযোগ চেয়ারম্যান রিপন মীর এর বিরুদ্ধে।


মতলব দক্ষিণে এই মহামারিতে জেলেদের চাউল আত্মসাৎ করার অভিযোগ চেয়ারম্যান রিপন মীর এর বিরুদ্ধে।। মতলব দক্ষিণ ৩নং খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিশোধ এর চেয়ারম্যান সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন রীপন মীর এর বিরুদ্ধে এই মহামারিতে কর্মহীন জেলেদের চাউল আত্মসাৎ করার অভিযোগে খাদেরগাঁও ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক ভুক্তভুগী কর্মহীন জেলেদের পক্ষে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করে অভিযোগ করেন, এই অভিযোগ এর অনুলিপি চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়, মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ, মতলব দক্ষিণ সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা, মতলব দক্ষিণ প্রেসক্লাবে দেওয়া হয়, এদিকে এলাকায় ঘেটে খাওয়া হত দরিদ্র এই মহামারিতে কর্মহীন জেলেরা ইউনিয়ন পরিশোধ এর সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে, তারা তখন দাবি করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই মহামারিতে হত দরিদ্র খেটে খাওয়া কর্মহীন জেলেদের ত্রাণ দিচ্ছেন আমরা এর কিছুই পাইনা,সব চেয়ারম্যান আত্মসাৎ করে নেন দুই একজনকে দিয়ে দুইটা ত্রাণ দেওয়ার ছবি তোলে, এদিকে জেলেদের ৩৭১ জনের চাউল ২২৫ জনকে দিয়ে বাকি ৪৬ জনের চাউল আত্মসাৎ করেন, যে ২২৫ জনকে দিয়েছেন এখানে ও অনেক অনিয়ম হয়েছে ২০ কেজি ২৫ কেজি করে দেওয়ার অভিযোগ করেন জেলেরা, এদিকে এলাকায় খবর নিয়ে দেখা যায় এই মহামারিতে সরকারি ত্রাণ ঠিক মতো মানুষ পাচ্ছেনা, মানুষের দাবি এই দুর্যোগে আমরা ছেলে সন্তান নিয়ে খেয়ে না খেয়ে খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছি ইউনিয়ন পরিশোধ থেকে কোন সহযোগিতা পাইনা, এই ব্যপারে মেম্বারা অসন্তোষ প্রকাশ করে এর সঠিক তদন্তের দাবি জানান, এলাকাবাসী আসংখ্যা করে বলেন কোন প্রভাবশালী মহল বা কারো ছদ্মছায়ায় যেনো পারপেয়ে না যায় এই দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যান এতে করে দূর্নীতিতে উৎসাহিত হবে এবং দূর্নীতিকে উৎসাহিত করবে, তারা এর সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান, এদিকে অভিযোগ কারি মোঃ সোলেমান সরকার বলেন, জাতির এই দুর্যোগে খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষ যাতে ঠিক মতো সরকারি ত্রাণ পায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কঠোর নির্দেশনা থাকা সত্যে ও কিছু সুযোগ সন্ধানি চেয়ারম্যানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সকল অর্জন বিথা যেতে পারেনা এটা খুবই দুঃখজনক, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা, মাননীয় সংসদ সদস্য গরীব দুঃখি অসহায় মানুষের প্রিয় বন্ধু এডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল এমপি মহোদয় সহ দায়িত্বশীল সকলের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি সঠিক তদন্ত করে তাকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক, এদিকে অভিযোগ করার কয়েকদিন পরে সুনির্দিষ্ট কোন প্রমান ছাড়া নিজের ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দিয়ে চেয়ারম্যান নিজেকে নির্দোশ দাবি করেন।