Home ব্রেকিং বিএনপি জামাতকে মহল্লাতেই প্রতিহত করবে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.মাইনুল হোসেন খান নিখিল

বিএনপি জামাতকে মহল্লাতেই প্রতিহত করবে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.মাইনুল হোসেন খান নিখিল


আশিক সরকার :   যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেছেন, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামাত বিএনপির ষড়যন্ত্র এখনো অব্যাহত রয়েছে। আগস্ট মাস আসলেই তারা ষড়যন্ত্রে মেতে উঠে। ২১ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড তারেক রহমান বিদেশে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। সেখানে বসেই দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র করছে। হত্যা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের চেস্টা করছে। ষড়যন্ত্র রুখে দিতে যুবলীগের প্রতিটি কর্মী সজাগ রয়েছে। জামাত বিএনপির ষড়যন্ত্র পাড়া-মহল্লা হতেই প্রতিহত করবে যুবলীগ।

আজ সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যুবলীগের মাসব্যাপী রান্না করা খাবার বিতরণের শেষ দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের উদ্যোগে ১ আগস্ট হতে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিদিন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, পান্থপথ কুঞ্জ ও ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে দু:স্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। গত ৩১ দিনে ২০ হাজার প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হয়েছে।
যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট এবং ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট একই সূত্রে গাঁথা। বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন, যা আজ দিবালোকের মতো সত্য।

তাই জিয়াউর রহমানকে মরনোত্তর বিচারের মুখোমুখি করা এখন সময়ের দাবি। জিয়ার পথ অনুসরণ করেই বেগম খালেদা এবং তারেক জিয়া ২১ আগস্ট নেত্রীকে সহ আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেট হামলা চালানা। এখনো তারেক জিয়া বিদেশে বসে নেত্রী হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। তাকে দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের রায় কার্যকর করার দাবিতে যুবলীগ সোচ্চার আছে।

মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, মানবতার কল্যাণে যুবসমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মনি যুবলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আমাদের সৌভাগ্য তারই পুত্র শেখ ফজলে শামস পরশের নেতৃত্বে মানবতার কল্যাণে যুবলীগ কাজ করছে। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হিসেবে মানবিকতার সবোর্চ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে যুবলীগের প্রতিটি কর্মীকে প্রস্তুত থাকতে হবে। এসময় যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মামনুর রশীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম, সাবেক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপ-সম্পাদক মোঃ শামছুল আলম অনিকসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা উপস্থিত ছিলেন।