Home জাতীয় বর্ণমালা স্কুল বুথে দুপুর পর্যন্ত পড়েনি এক ভোটও

বর্ণমালা স্কুল বুথে দুপুর পর্যন্ত পড়েনি এক ভোটও

SHARE

ঢাকা-৫ আসনে উপনির্বাচনে আজ শনিবার ভোটগ্রহণ শুরুর পর থেকেই অনেক কেন্দ্র ফাঁকা পড়ে থাকার খবর পাওয়া যাচ্ছিল। কোনো কোনো কেন্দ্রে আবার শুরুর ঘণ্টাখানেক পর এক-দুই শতাংশ ভোট পড়েছে। তবে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত কদমতলী থানার ধনিয়ায় অবস্থিত বর্ণমালা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের এক বুথে এক ভোটও পড়েনি বলে জানা গেছে।

অধিকাংশ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারের উপস্থিতি একেবারেই কম। কেন্দ্রগুলোতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর নেতাকর্মীদের উপস্থিতি থাকলেও ভোটার সংখ্যা হাতেগোনা দু-চারজন। মেট্রোপলিটন ক্রিয়েটিভ স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে এক ঘণ্টায় ২ হাজার ৪০০ ভোটের মধ্যে ভোট পড়েছে মাত্র ৩৫টি।

ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. জসিমউদ্দিন বলেন, মেট্রোপলিটন ক্রিয়েটিভ স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৪০০। এর মধ্যে এক ঘণ্টায় ভোট পড়েছে মাত্র ৩৫টি।

ডগাইর দারুচ্ছুন্নাত ফাযিল মাদ্রাসার প্রিসাইডিং অফিসার মো. মহসিন মোল্লা জানান, তার ১৪৮ নম্বর কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৬২৫ জন। সকাল ১০টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৪৫টি। ভোটার সংখ্যা তুলনামূলকভাবে কিছুটা কম।

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা গত ৬ মে মারা যাওয়ায় ঢাকা-৫ আসনটি শূন্য হয়। এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয় প্রার্থী।

তারা হলেন- আওয়ামী লীগের মো. কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ, জাতীয় পার্টির মীর আব্দুর সবুর, গণফ্রন্টের এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আনছার রহমান শিকদার ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আরিফুর রহমান।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের চারটি থানা নিয়ে এই আসনটি গঠিত। এগুলো হলো- মতিঝিল (আংশিক), যাত্রাবাড়ি, ডেমরা ও কদমতলী (আংশিক)। আসনটিতে ১৪টি ওয়ার্ডে মোট ১৮৭টি কেন্দ্রের ৮৬৪টি কক্ষে এক হাজার ৯৫টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন চার লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন।