Home রাজনীতি অশুভ শক্তির কারণে গণতন্ত্র এখনও প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি

অশুভ শক্তির কারণে গণতন্ত্র এখনও প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি

SHARE

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর ২১ বছর ধরে গণতন্ত্র শৃঙ্খলে আবদ্ধ ছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরে গণতন্ত্রকে শৃঙ্খলমুক্ত করতে সংগ্রাম করেছেন। তবে, গণতন্ত্র শৃঙ্খলমুক্ত হলেও একটি অশুভ শক্তির অপচেষ্টা কারণে গণতন্ত্র এখনও প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর দোয়েল চত্বরে অবস্থিত জাতীয় তিন নেতার মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন,  একটি মহল মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তাদের আচরণে কখনও মনে হয়নি তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠানিক রূপ দিতে অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্রের চর্চা করতে হবে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের উদাহারণ টেনে বলেন, নিজেরা গণতন্ত্রের উৎকৃষ্ট চর্চা করেই অন্যদের এ বিষয়ে ছবক দেয়া উচিত। কারণ যার ঘরে গণতন্ত্র নেই তিনি বাইরের দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবেন এটটা আশা করা যায় না।

ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্কের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী নিজেই দেখছেন উল্লেখ করেন সড়ক পরিবহন মন্ত্রী। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা জানেন পরিস্থিতি কীভাবে মোকাবিলা করতে হয়। প্রধানমন্ত্রী যেভাবে সফলতার সঙ্গে করোনা মোকাবিলা করছেন তেমনি এ ইস্যুতেও সমাধান করবেন। সব ব্যাপারে মাথা গরম করা ঠিক নয়।

কাদের বলেন, স’রাসরি কারও সঙ্গে সংঘাত নয়। মূর্তি আর ভাস্কর্য এক নয়। সৌদি আরবসহ বিশ্বের মুসলিম দেশগুলোতে ভাস্কর্য আছে। সেসব ভাস্কর্য যদি ইসলামবিরোধী না হয় তাহলে বাংলাদেশে তা অবৈধ কেন? এ বিতর্ক অযৌক্তিক।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবারও জানান, দলীয় মনোনীত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হলে তাকে শাস্তি পেতে হবে।

এসময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, মোঃ নুরুল আমিন রুহুল এমপি, ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, নির্বাহী সদস্য এ বি এম রিয়াজুল কবিবর কাওছার প্রমুখ।