Home আইন/আদালত পুলিশে মাদকসেবীর কোনো জায়গা নেই

পুলিশে মাদকসেবীর কোনো জায়গা নেই

SHARE

ষ্টাফ রিপোর্টার: পুলিশ বাহিনীতে মাদকাসক্ত সদস্যদের কোনো জায়গা নেই বলে আবারও হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, ‘আমরা এ ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যয়ী। তাই বিষয়টি সবার কাছে পরিষ্কার করতে চাই।’ গতকাল রবিবার সকালে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) অ্যাপ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে

যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টার, কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ ও হ্যালো আরএমপি অ্যাপ’ উদ্বোধন করেন পুলিশ মহাপরিদর্শক। বেলা সাড়ে ১১টায় রাজশাহী মহানগরীর সিঅ্যান্ডবি মোড়ে অবস্থিত আরএমপির নির্মাণাধীন সদর দপ্তরে এ অ্যাপস উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সদ্য আদালতে দাখিল করা মেজর সিনহা হত্যা মামলার চার্জশিট প্রশ্নে আইজিপি বলেন, ‘আলোচিত এ ঘটনাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। তাই এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

অন্য এক প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, ‘হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সৃজনশীল প্রযুক্তির যথাযথ প্রয়োগ এবং তার সময়োচিত ব্যবহারই বাংলাদেশের আর্থসামজিক উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে পারে। সেই লক্ষ্য সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী তার দিন বদলের নন্দিত সনদ ‘রূপকল্প ২০৪১’ দিয়েছেন।

এর মধ্যে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ প্রতিষ্ঠার এক সুচিন্তিত কর্মসূচি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকার অপরাধ ও অপরাধীকে চিহ্নিতকরণ, অপরাধ দমন, জনসাধারণের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে নতুন অ্যাপস উদ্বোধন করা হলো।’ এটি মেট্রোপলিটন এলাকার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অন্যতম ভূমিকা রাখবে বলেও প্রত্যাশা করেন আইজিপি।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি আব্দুল বাতেন, আরএমপি কমিশনার মো. আবু কালাম সিদ্দিকসহ রাজশাহী মেট্রোপলিটন ও রাজশাহী রেঞ্জের ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টারের মাধ্যমে শহর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও মোড়ে স্থাপন করা সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে সার্বক্ষণিক মনিটর করা হবে। এর মাধ্যমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকায় সন্দেহভাজন ও অপরাধীদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ, দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীকে শনাক্তকরণ সহজ হবে। এরই মধ্যে ‘কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ’ তৈরি করা হয়েছে। কিশোর গ্যাংয়ের প্রায় ৪০০ কিশোরের বিস্তারিত তথ্য এ ডিজিটাল ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

আর ‘হ্যালো আরএমপি অ্যাপ’-এর মাধ্যমে এখন থেকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে তথ্য প্রদান ও অনলাইনে অভিযোগ করা যাবে। বাংলাদেশ পুলিশের জরুরি সেবা যেমন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট, অনলাইন জিডি এবং ৯৯৯ জাতীয় জরুরি সেবাসমূহ এ অ্যাপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ অ্যাপ থেকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সব কর্মকর্তাদের ফোন নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং ই-মেইল ঠিকানা পাওয়া যাবে। এ ছাড়াও এ অ্যাপের মাধ্যমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়েব পোর্টাল এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালটিও দেখা যাবে।