Home অন্যান্য ভ্যাকসিন আমদানি কমাতে হবে

ভ্যাকসিন আমদানি কমাতে হবে

SHARE

৫ জানুয়ারি ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:৪৭
বিশ্ববিদ্যালয় পরিক্রমা ডেস্ক : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রাণিসম্পদ খাতে দেশে ভ্যাকসিন উৎপাদন বাড়িয়ে বিদেশ থেকে আমদানি কমাতে হবে। বিদেশ থেকে ভ্যাকসিন আনলে অনেক অর্থ ব্যয় হয়। এটি দেশে তৈরি করলে এ ব্যয় এক-তৃতীয়াংশ হবে। এতে আমাদের অর্থ সাশ্রয় হবে। করোনাকাল যত বেশি অর্থ সাশ্রয় হবে, সে অর্থ দিয়ে

আমরা দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারব।

দেশের প্রতিভাবান বিজ্ঞানীরা ভ্যাকসিন তৈরি করতে পারলে সেটা কেন আমরা বিদেশ থেকে আনব- এ প্রশ্ন রেখে মন্ত্রী এ বিষয়ে আরও বলেন, গবেষণালব্ধ সম্পদ সরবরাহ করতে না পারলে দেশের প্রাণিসম্পদ খাত ধ্বংস হয়ে যাবে। সেজন্য এ খাতের বিজ্ঞানীদের গবেষণালব্ধ জ্ঞান দিয়ে প্রাণিসম্পদ খাতকে বিকশিত করতে হবে, সমৃদ্ধ করতে হবে। বিশ্বের বুকে মাথা তুলে দাঁড়াবার মতো অবস্থা সৃষ্টি করতে হবে।

গতকাল সোমবার রাজধানীর মহাখালীতে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতাধীন প্রাণিসম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সম্মেলন কক্ষে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত সায়েন্টিফিক কনফারেন্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

গবেষক ও বিজ্ঞানীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, দেশের সীমিত সম্পদের সর্বাধিক ব্যবহার করতে হবে। মেধার বিকাশ যে যতটা ঘটাবেন তিনি তত বেশি সৃষ্টি করতে পারবেন। সবাইকে আরও বেশি তৎপর হতে হবে। নিজ যোগ্যতার প্রকাশ ও বিকাশ করাটাই আপনাদের দায়িত্বের পরিধি। একজন বিজ্ঞানী বা একজন ভালো লেখাপড়া করা ব্যক্তির প্রতিভার বিকাশ সম্পূর্ণ আলাদা দেখতে চাই। দেশের বাইরে আমাদের বিজ্ঞানীরা প্রতিভার বিকাশ ঘটাচ্ছে। দেশের বাইরে পারলে এখানে কেন নয়? দেশে প্রতিকূলতা ও প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে এগোতে পারলেই সার্থকতা আসবে। প্রতিবছর রোগের সংক্রমণ পরিস্থিতির সঙ্গে ভ্যাকসিন আপডেট করাই আপনাদের কৃতিত্ব। বিশ্বের শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানীদের অপেক্ষায় না থেকে আপনাদেরই হতে হবে শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী। আপনাদেরই হতে হবে দেশের শ্রেষ্ঠ সম্পদ, হতে হবে সমস্যা সমাধানকারী।