Home ব্রেকিং মতলব উত্তরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে উপজেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ।

মতলব উত্তরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে উপজেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ।

SHARE
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে উপজেলার সুজাতপুর বাজারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ইউসুফ গাজী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউসুফ গাজী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ব্রিটিশ সরকার সম্মাননা দিয়েছেন। কারণ বিশ্বে একজনই নেতা আছে যাকে ৯৭ ভাগ মানুষ সমর্থন করেছে। আমরা এমন একজন নেতার আদর্শকে বুকে লালন করি। সেই নেতাকে ছাড়া সেদিন বাঙালী জাতি বিজয়কে পরিপূর্ণ ভাবে মেনে নবতে পারে নি। অবশেষে মুক্তিযুদ্ধের পাকিস্তানি বাহিনী আত্মসমর্পণ করার পর ১৯৭২ সালের ১০ ই জানুয়ারী মুক্তি পেয়ে দেশের মাটিতে পা রাখেন বঙ্গবন্ধু। সেই থেকে ১০ জানুয়ারী বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করা হচ্ছে। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ইতিহাস তুলে ধরেন।
ইউসুফ গাজী আরও বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্র মুক্ত আওয়ামী লীগ। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সুষ্ঠুভাবে চলছে। বঙ্গবন্ধুর সময়ও মোস্তাকরা আওয়ামীলীগ নিয়ে ষড়যন্ত্র করেছিল। কিন্তু কোন কুল পায়নি। এখনো আওয়ামীলীগের উন্নয়ন দেখে একটি মহল সর্বস্তরে ষড়যন্ত্র করছে। কেউ ষড়যন্ত্র করলে ছাড় দেওয়া হবে না। আওয়ামী লীগ চলছে গঠনতন্ত্র অনুয়ায়ী। জেলা উপজেলার কোন কমিটি ভাঙ্গা ক্ষমতা একমাত্র সভানেত্রী শেখ হাসিনার আছে, আর কারো নেই। তাই মতলব উত্তরের যে কমিটি চলছে ওই কমিটিই চলবে এবং রুহুল আমিন-এমএ কুদ্দুস কমিটি বহাল আছে। নতুন কমিটি গঠন করতে হলে নিয়মতান্ত্রিক ভাবে হবে। ফেসবুকের মাধ্যমে কোন কমিটি হতে পারে না, এটা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিমুলক প্রচারণা। সবাইকে এধরণের গুজব থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. মোঃ রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান প্রধানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মজিবুর রহমান ভুইয়া, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর মোঃ আদেল, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।
আরো বক্তব্য রাখেন, মতলব উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শহীদ উল্লা প্রধান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব আলী গাজী, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আমিন বোরহান, সুলতানাবাদ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী, মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খাজা আহমেদ, ফতেপুর পুর্ব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সালাউদ্দীন, এখলাছপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আমান উল্লাহ, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল বাশার খোকন, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, উপজেলা বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক কামরুল হাসান, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী পলি শিকদার, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব শাহজালাল মাস্টার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক মিরাজ খালিদ, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম সরকার। পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন আওয়ামী লীগ নেতা খাজা আহমেদ।
   উপস্থিত ছিলেন, ইসলামবাদ ইউপি চেয়ারম্যান সাজেদুল হাসান বাবু (বাতেন), সুজাতপুর ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি মাইনুদ্দিন সরকার, সাধারণ সম্পাদক জামাল হোসেন, সুজাতপুর বাজার বণিক সমবায় সমিতির সভাপতি বিল্লাল হোসেন, সহ-সভাপতি ওসমান গনি, সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা শফি উদ্দিন, ইসলামাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন পাটোয়ারী, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী শামীমা নাসরিন প্রমুখ।