Home ক্যাম্পাস খবর অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্ত শাবিপ্রবি উপাচার্য, শিক্ষার্থীদের ওপর টিয়ারশেল

অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্ত শাবিপ্রবি উপাচার্য, শিক্ষার্থীদের ওপর টিয়ারশেল

SHARE

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে অবরুদ্ধ করে রেখেছিলেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। পরে অবশ্য পুলিশ তাকে অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্ত করে। এ সময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের থামাতে তাদের লক্ষ্য করে টিয়ারশেল, রাবার বুলেট ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশসহ ২৫-৩০ জন শিক্ষার্থী ও প্রশাসনের কর্মকর্তা আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

আজ রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে বিকেলে শিক্ষার্থীদের তিন দফা দাবি মেনে না নেওয়ায় উপাচার্যকে ওই ভবনে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।

জানা যায়, উপাচার্য কার্যালয় থেকে বের হয়ে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া আইসিটি ভবনে ঢোকার চেষ্টা করলে শিক্ষার্থীরা তাকে অবরুদ্ধ করে ফেলেন।

এদিকে, ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সিলেট উপপুলিশ কমিশনার আজবাহার আলী শেখের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের আশ্বাস দিয়ে হলের গুণগতমান উন্নত করা এবং অব্যবস্থাপনার বিষয়ে সঠিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়। এ জন্য শিক্ষার্থীদের কাছে এক সপ্তাহের সময় চায় প্রশাসন। কিন্তু তিন দফা দাবি না মানা পর্যন্ত সময় বাড়াতে অস্বীকৃতি জানান আন্দোলনকারীরা। পরে প্রশাসনিক বডির সদস্যরা সেখান থেকে চলে যান। একপর্যায়ে নিজ কার্যালয় থেকে বাসভবনে যাওয়ার পথে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন উপাচার্য। এ সময় শিক্ষার্থীরা ধাওয়া করলে তিনি আইসিটি ভবনে আশ্রয় নেন। পরে ভবনের কলাপসিবল গেট আটকে দিয়ে উপাচার্যকে ভেতরে অবরুদ্ধ করে রাখেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।