Home অর্থনীতি খাদ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে ৬০ বছরের রেকর্ড : বিবিসি

খাদ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে ৬০ বছরের রেকর্ড : বিবিসি

SHARE

মাত্র এক মাসের ব্যবধানে বিশ্বে ভোজ্য তেল, খাদ্যশস্য, চিনি, মাংসসহ খাদ্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির গড় হার ১৩ শতাংশে পৌঁছেছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে বিশ্বজুড়ে প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে খাদ্যপণ্যের দাম। ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত মূল্যবৃদ্ধির হার এ রেকর্ড ছোঁয়েছে।

জাতিসংঘের বৈশ্বিক খাদ্যপণ্য মূল্যসূচকের বরাত দিয়ে শনিবার (৯ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করে বিবিসি।

এ বিষয়ক এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বলা হয়, বৈশ্বিক খাদ্যপণ্য মূল্যসূচকের যাত্রা শুরু হয় আজ থেকে ৬০ বছর আগে। গত ৬০ বছরের ইতিহাসে এত অল্প সময়ের মধ্যে খাদ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির এই পরিমাণ গতি দেখতে পাওয়া যায়নি।

সূচকের বরাত দিয়ে তারা জানায়, গত ‍এক মাসে বিশ্বে ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে ২৩ শতাংশ, খাদ্যশস্যের দাম বেড়েছে ১৭ শতাংশ, চিনির দাম বেড়েছে ৭ শতাংশ, মাংসের দাম বেড়েছে ৫ শতাংশ এবং দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্যের দাম বেড়েছে ৩ শতাংশ।

বৈশ্বিক বাজারে ভোজ্য তেল, বিশেষ করে সূর্যমুখী তেল ও খাদ্যশস্যের সবচেয়ে বড় যোগান আসে রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে। কিন্তু যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ায় এ দু’টি দেশ থেকে যোগান আসা একেবারেই কমে গেছে। ফলে এই দুই পণ্যের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে এবং সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে চিনি-মাংস ও দুধের দামও।

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক সংস্থা গত মাসে সতর্কবার্তা দিয়েছে—বছরের শেষ নাগাদ খাদ্যপণ্যের দাম ২০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে। যুদ্ধের জেরে ইউক্রেনে কৃষি উৎপাদন কমে যাওয়াই হবে এই মূল্যবৃদ্ধির মূল কারণ।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে এই বৈশ্বিক খাদ্যসংকট সৃষ্টির জন্য অভিযুক্ত করেছে। যুদ্ধের ফলে বিশ্বজুড়ে দুর্ভিক্ষের ঝুঁকি বেড়েছে বলে সতর্ক করেছে ফ্রান্স।