Home ক্যাম্পাস খবর এক্সিম ব্যাংক এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ’র ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে যোগদান করেছেন অধ্যাপক ড....

এক্সিম ব্যাংক এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ’র ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে যোগদান করেছেন অধ্যাপক ড. এবিএম রাশেদুল হাসান

SHARE
অধ্যাপক ড. এবিএম রাশেদুল হাসান

পরিক্রমা ডেস্ক : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশের চ্যান্সেলর -এর নিকট থেকে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. এবিএম রাশেদুল হাসান ০১ সেপ্টেম্বর, ২০২২ তারিখে এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশে ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে যোগদান করেন। শিক্ষা, আর্থিক ব্যবস্থাপনা এবং সরকারী প্রশাসনের ক্ষেত্রে তাঁর বিস্তৃত অভিজ্ঞতা রয়েছে।

অধ্যাপক রাশেদুল হাসান এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশে ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগের আগে তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে যোগদানের আগে প্রফেসর রাশেদুল হাসান এক্সিম ব্যাংক এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশের ট্রেজারার এবং অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজিতে প্রফেসর ও ট্রেজারার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। উল্লেখ্য যে, ইতিপূর্বে তিনি এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশের ভাইস চ্যান্সেলর (মনোনীত) হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

প্রফেসর রাশেদুল হাসান মালয়েশিয়ার লিঙ্কন ইউনিভার্সিটি থেকে ডক্টর অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (ডিবিএ) ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবস্থাপনায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ইন্ডিয়ান একাডেমিক রিসার্স এসোসিয়েশন (আইএএআরএ)-এর একজন সম্মানিত ফেলো এবং বাংলাদেশ শাখার সভাপতি।

উদ্ভাবনী, দক্ষ ও দূরদর্শী নেতা হিসেবে সুনামের পাশাপাশি একাডেমিক ও প্রশাসনে অধ্যাপক হাসানের শক্তিশালী কৃতিত্ব রয়েছে। তিনি ১৯৯১ সালে মাইডাস (MIDAS)-এ প্রোগ্রাম অফিসার হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন, তারপর তিনি ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার হিসাবে ANZ Grindlays Bank-এ যোগদান করেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট (বিআইএম) এ অ্যাসোসিয়েট ম্যানেজমেন্ট কাউন্সেলর হিসাবে যোগদান করেন এবং অবশেষে তিনি একজন সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলর হন। বিআইএম-এর সাথে থাকাকালীন, তিনি বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন, যার মধ্যে রয়েছে প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের পরিচালক (পরিকল্পনা), দ্বিতীয় সচিব এবং মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম শাখার প্রথম সচিব হিসেবে কাজ করেন। এখন তার লক্ষ্য হল এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশকে সাফল্যের পরবর্তী স্তরে নিয়ে যাওয়া।

অধ্যাপক হাসান বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রকাশনার সম্পাদকীয় বোর্ডে সদস্য হিসেবে কাজ করেন। তিনি মর্যাদাপূর্ণ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে বেশ কয়েকটি নিবন্ধ প্রকাশ করেছেন এবং তিনি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, ওয়ার্কশপ এবং ওয়েবিনারে অংশগ্রহণ করেছেন।

অধ্যাপক হাসান খুলনার আজম খান কমার্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ অধ্যাপক আবুল বাশার এবং খুলনার পাইওনিয়ার গার্লস কলেজের অধ্যাপক রোকেয়া বেগমের ছেলে।

SHARE