Home ক্যাম্পাস খবর উস্কানিদাতাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী

উস্কানিদাতাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী

SHARE

চলমান এইচএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে যারা সাম্প্রদায়িক ও উস্কানিমূলক প্রসঙ্গ এনেছে তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।
তিনি আজ রাজধানীর সেগুন বাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউটে অনুষ্ঠিত এইচএসসির বাংলা প্রথম পত্রের প্রশ্নপত্রে সাম্প্রদায়িকতার উস্কানি নিয়ে সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক দেশ। এখানে প্রশ্নপত্রে কোন ধরনের উসকানিমূলক বিষয় থাকলে তা হবে দুঃখজনক। যারা এধরনের কর্মকান্ডে যুক্ত তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বলেন, পাঠ্যক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য ব্রেইল সেন্টার স্থাপন করার উদ্যোগ নেয়া হবে।
কৃষ্টি-প্রতিবন্ধী মানুষের জীবন যাত্রা কেন্দ্রের আয়োজনে ‘প্রমিত বাংলা ব্রেইল নির্দেশিকার প্রয়োজনীয়তা ও আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন দীপু মনি।
তিনি বলেন, অংক ও বিজ্ঞান শিক্ষায় এখনো ব্রেইল সিস্টেমে কিছু সমস্যা রয়ে গেছে। বর্তমান সরকার এই সমাস্যা সমাধানে চেষ্টা করবে।
নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী  নবম ও দশম শ্রেনিতে গ্রুপ ভিত্তিক বিভাজন থাকবে  না এ কথা  উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, সে ক্ষেত্রে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের অবশ্যই  অংক ও বিজ্ঞান পড়তে হবে।
কৃষ্টির সভাপতি সাবরিনা সুলতানার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠাপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. ফরহাদুল ইসলাম, ব্রেইল বিশেষজ্ঞ, বিশেষ ও সমন্বিত শিক্ষাকার্যক্রমের শিক্ষকবৃন্দ।
ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, প্রতিবন্ধীদের করুণা করার প্রয়োজন নেই। তাদের সুযোগ দিলেই অনেক দূর এগিয়ে যাবে।

SHARE