Home জাতীয় চট্টগ্রামে মুনীর চৌধুরী জলবায়ু রক্ষায় তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে

চট্টগ্রামে মুনীর চৌধুরী জলবায়ু রক্ষায় তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে

SHARE

পরিক্রমা ডেস্ক : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান অনুষদে অনুষ্ঠিত গতকাল (২২.০১.২০২৩খ্রি.) “বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব” শীর্ষক এক সেমিনারে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন “ জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। শুধু ক্লাস রুমে সীমাবদ্ধ না থেকে এবং মোবাইল ফোনে ডুবে না যেয়ে মাঠে নেমে পরিবেশ দূষণের বিপর্যয় সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনতা তৈরী করতে হবে এবং দূষণকারীদের চিহ্নিত করে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশে ইট ভাটা গুলোকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশের হুমকিহিসেবে চিহ্নিত করে এসব পুরাতন প্রযুক্তির ইটভাটা অপসারণ নতুবা নতুন প্রযুক্তিতে রূপান্তরে বাধ্য করতে হবে। নিজেদের ক্যাম্পাসকে প্লাস্টিক ও পলিথিনের অভিশাপ থেকে রক্ষা করতে হবে। জাপানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা নিজেরাই নিজেদের ক্যাম্পাসকে দূষণমুক্ত রাখে। একসময় জাপানও দূষণে জর্জরিত হয়ে গিয়েছিলো। কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় জাপান আজ বিশ্বের অন্যতম পরিবেশ সুরক্ষা কারী দেশ। ডিগ্রী অর্জনের পর পরই সরকারি চাকুরীর আকর্ষণে দৌড়ঝাপ না করে গবেষণামূলক কাজে আত্মনিয়োগ করাই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার যথার্থতা। বিশ্ববিদ্যালয় শুধু সার্টিফিকেট অর্জনের জন্য নয়, গবেষণার জন্যই বিশ্ববিদ্যালয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় জলবায়ু বিষয়ে গবেষণার জন্য শ্রেষ্ঠ স্থান। ক্যাম্পাসের নীরব পরিবেশ গবেষণা কর্মের জন্য অত্যন্ত অনুকূল। তরুণ শিক্ষার্থীরা একাডেমিক জীবনের বাইরে বিভিন্ন ইটভাটা ও কারখানা পরিদর্শন করে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উপর জ্ঞান অর্জন করতে পারে এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের সঙ্গে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উপর নজরদারিমূলক দায়িত্ব পালন করতে পারে।” সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৌহিদ হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আল ফোরকান ও প্রফেসর ড. লায়লা খালেদা।

SHARE